সংগঠন সংবাদ

ডিসি হিলে বিজয় ৭১’র ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও বীর চট্টলা বিজয় উৎসব অনুষ্ঠিত 

এম সোলাইমান কাসেমী :: বিজয়’৭১ এর ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও বীর চট্টলা বিজয় উৎসব উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে ১৩ ডিসেম্বর, শুক্রবার বিকেল ৩টায় ডি.সি হিল (নজরুল স্কয়ারে) মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ, সম্মাননা প্রদান, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠ সৈনিকদের সম্মাননা প্রদান এবং মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের শুভেচ্ছা স্মারক প্রদানের মাধ্যমে প্রথম পর্বের অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি সজল চৌধুরী। মুক্তিযোদ্ধা এবং ৭১ জন ছিন্নমূল শিশুদের নিয়ে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম নাছির উদ্দীন। তিনি বলেন, বিজয়’৭১ এর তরুণরা তাদের সৃষ্টিশীল কর্মকা-ের মাধ্যমে চট্টগ্রামকে অহংকারে পরিণত করেছে। আমি বিশ্বাস করি, জয় বাংলা এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও বিশ্বাসকে প্রতিষ্ঠিত করে এই সংগঠনটি অনেকদূর এগিয়ে যাবে। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে বিজয় উৎসবে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বিজয় উৎসবের আহ্বায়ক মো: সাহাবউদ্দিন। উদ্বোধন করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফ্ফর আহমদ। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেন, আমাদের সামগ্রিক, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, বিশেষ করে নারী-শিশু, স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও মানব উন্নয়নের অগ্রগতির মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ তার জনগণের প্রতি দ্বিতীয় প্রতিশ্রুতি পূরণের পথে এগুচ্ছে। তিনি মুক্তিযোদ্ধাসহ সকলের অংশগ্রহণে একটি সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গঠনের আহ্বান জানান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদুল হক চৌধুরী, সাধন চন্দ্র বিশ্বাস, রফিকুল আলম, মো: ইউসুফ, জাফর আহমদ, কামরুল আলম, শহীদুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম, সৈয়দ আহমদ, শহীদুল হক, অঞ্জন কুমার সেন, রাখাল চন্দ্র ঘোষ, শিক্ষাবিদ ড. মোহাম্মদ সানাউল্লাহ, জেলা পরিষদের সদস্য শাহিদা আক্তার জাহান, আলী আহমেদ শাহীন, কাস্টমস্ সহকারী কমিশনার নজরুল ইসলাম চৌধুরী, যুব সংগঠক সুমন দেবনাথ, খন্দকার লতিফুর রহমান আজিম, লায়ন ডা. আর.কে রুবেল, পরিমল কান্তি দত্ত, শিক্ষিকা নিলা বোস, আবৃত্তিশিল্পী ফারুক হোসেন, মো: মুজাহিদ, ডা. মো: জামাল উদ্দিন। আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের মো: আবু ছালেহ্, লায়ন এস.বি জীবন, এস.ডি জীবন, মৃণাল কান্তি দাশ, ডা. এস.কে পাল সুজন, ডা. অপূর্ব ধর, মিলন কান্তি দেবনাথ, সজল দাশ, ওসমান সরওয়ার, মো: জামশেদ, ডা. এস.এম কামরুজ্জামান, ডা. নয়ন, ডা. মো: মনির আজাদ, গোপাল দাশ টিপু, এস.এম. জাবেদ হোসেন, প্রণব মজুমদার, শবনম ফেরদৌসী, শিক্ষিকা রিংকু ভট্টাচার্য্য, তমাল চৌধুরী প্রমুখ। প্রধান আলোচকের বক্তব্যে ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, স্বাধীনতার ৪৯তম বছর অতিক্রান্ত করছি আমরা। এই মুহুর্তে স্বাধীনতার এ অর্জনকে গৌরব উজ্জ্বল করার জন্যে তরুণের সমন্বয় করে আগামীর স্বপ্ন বঙ্গবন্ধুর শততম বার্ষিকী এবং সেই সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকা-কে আরো বেগবান করতে হবে। সভায় সম্মাননাপ্রাপ্ত শহীদজায়া বেগম মুশতারী শফী অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, আজকের তরুণ প্রজন্ম বিজয়’৭১ এর কর্মীরা আমাকের যে সম্মাননা দিয়েছে আমি খুবই আনন্দিত। ড. মাহবুবুল হক বলেন, বাংলাদেশ এবং বাংলাভাষা আজ বিশ্বের বুকে অহংকারের জায়গা করে নিয়েছে। তিনি এ প্রজন্মকে শিক্ষা, সংস্কৃতি কর্মকা-ে সম্পৃক্ত হয়ে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানান। মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন মো: সরওয়ার আলম মনি, শাহেদ মুরাদ শাকু, কাজী মো: রাজিশ ইমরান, ড. মো: ওমর ফারুক রাসেল, মো: আশরাফুল হক চৌধুরী, বিবি গুল জান্নাত, রিপন চৌধুরী, মো: মঈনুল আলম সৌরভ, মো: ওমর ফারুক চৌধুরী জীবন, শেখ খোরশেদুজ্জামান। পরে টিভি, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র ও বরেণ্য শিল্পীবৃন্দের পরিবেশনায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। অনুষ্ঠানের সমাপনীতে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠসৈনিক মৃণাল কান্তি ভট্টাচার্য্য, জয়ন্তী লালা, সুজিত কুমার রায় ও প্রয়াত প্রবাল চৌধুরী’র পরিবারকে বিজয় স্মারক সম্মাননা প্রদান করা হয়।

Show More

MSKnews24.com desk

জনপদে জনগণের কণ্ঠস্বর

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close