সারাদেশ

কক্সবাজারের শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার  হলেন নোমান

এম, রিদুয়ানুল হক :: কক্সবাজার জেলায় শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নির্বাচিত হলেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুরুদ্দীন মো. শিবলী নোমান।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন কক্সবাজার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের কার্যালয় থেকে এবিষয়ে ২৮ ডিসেম্বর’১৯ একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। উক্ত প্রজ্ঞাপনে কক্সবাজার জেলায় প্রাথমিক শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমানে চকরিয়া উপজেলায় কর্মরত নুরুদ্দীন মোহাম্মদ শিবলী নোনাম।

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলাস্থ চুনতির কৃতি সন্তান নুরুদ্দীন মোহাম্মদ শিবলী নোমান বিসিএস ৩০তম ব্যাচের কীর্তিমান মানুষ গত ২৭ অক্টোবর’১৯ তারিখে চকরিয়া উপজেলা কর্মকর্তা হিসেবে চকরিয়ায় যোগদান করেন। এরপূর্বে তিনি উখিয়া উপজেলার এসিল্যান্ড হিসেবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

এবিষয়ে নুরুদ্দীন মোহাম্মদ শিবলী নোমান বিবিসি একাত্তরকে বলেন- এসফলতার জন্য আমি চকরিয়াবাসীর কাছে চিরঋণী। আমার এ অর্জন চকরিয়াবাসির জন্য উৎসর্গ করলাম। তিনি সবার দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেছেন।

চকরিয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দীন মোহাম্মদ শিবলী নোমান কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নির্বাচিত হওয়ায় অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিবিসি একাত্তর পরিবার।

যে কারণে শ্রেষ্ঠ নির্বাহী কর্মকর্তা হলেন তিনিঃ লেখাপড়ার মানন্নোয়নের পাশাপাশি চলতি অর্থবছর পরিকল্পিত উন্নয়নে বদলে যাচ্ছে উপজেলার ১৪৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে অন্তত ১২৮টি বিদ্যালয়ের। ইতোমধ্যে উন্নয়নের ছোয়ায় এসব বিদ্যালয়কে নতুনরূপে ঢেলে সাজানো হয়েছে। চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দিন মুহাম্মদ শিবলী নোমানের দিকনির্দেশনায় বর্তমানে এসব বিদ্যালয়গুলোকে স্মার্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাস্তবে রূপ দেওয়া হয়েছে। পরিচ্ছন্ন বিদ্যালয় ও বিদ্যালয়ের আঙ্গিনা, দেখতে আকর্ষণীয়, ঝঁক-ঝঁকে ও সপ্ত-রঙে রঙিন করা হচ্ছে বিদ্যালয়গুলোকে।

বিদ্যালয়ের ভেতরে-বাইরে আকাঁ হচ্ছে দেশের ঐতিহাসিক ব্যক্তিবর্গের ছবি, জাতীয়পাখি, জাতীয়ফল-ফুল, প্রাথমিকবাংলা ও ইংরেজীবর্ণমালা। বিদ্যালয় ও বিদ্যালয়ের আশপাশ নিত্যকার থাকছে পরিচ্ছন্ন এবং পরিপাটি। শিক্ষার্থীরা যেন বিদ্যালয়ের প্রতি আকৃষ্ট ও অনুপ্রাণিত হয় সেইজন্য করা হয়েছে সব ব্যবস্থা।

পাশাপাশি ইউএনও শিবলী নোমানের সার্বিক মনিটরিংয়ে ২০১৮-১৯ অর্থবছর অর্থবরাদ্দ নিশ্চিতের মাধ্যমে বিদ্যালয় গুলোকে পরিকল্পিত উন্নয়নে ঢেলে সাজানো হচ্ছে। বর্তমানে এসব বিদ্যালয়গুলোকে কচি-কাচা শিক্ষার্থীদের নিকট আকর্ষণীয় করতে বিদ্যালয় গুলোকে এক একটি করে সাজানো-গুছানো হয়েছে। উন্নত স্যানিটেশন সিস্টেম, উন্নতপরিবেশ, আকর্ষণীয় বিদ্যাঙ্গন ফুল, ফল এবং বৃক্ষরোপনে পরিবেশবান্ধব মনোরম করা হয়েছে।

Show More

MSKnews24.com desk

জনপদে জনগণের কণ্ঠস্বর

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close