অন্যান্য

প্রবাসী পরিবারের পাশে ”লোহাগাড়া সেয়ানা পোলা- মাইয়া”ফেইসবুক গ্রুপ

লোহাগাড়া প্রতিনিধি : কভিড নাইন্টিন প্রতিরোধে পুরো বিশ্ব সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। মধ্যবিত্ত, নিম্ন মধ্যবিত্ত ও সুবিধা বঞ্চিত মানুষের পাশাপাশি সাময়িকভাবে কর্মহীন হয়ে পড়েছে অনেক প্রবাসী সংকটময় সময় অতিবাহিত করতেছে । যে সমস্ত মধ্যবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবার শুধুমাত্র প্রবাসী আয়ের উপর নির্ভরশীল তারা চরম বেকায়দায় পড়েছে এবং আত্ম-সম্মানের কারণে না পারছে কাউকে বলতে বা কারো কাছে হাত পাততে। অন্যদিকে সরকারিভাবেও প্রত্যকের খোঁজ খবর নিয়েও সহযোগিতা করা সম্ভব হচ্ছে না। এসব প্রবাসী পরিবারের কথা মানবিক বিবেচনায় নিয়ে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর উপহার নিয়ে তাদের পাশে দাড়িয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ভিত্তিক চট্টগ্রামের জনপ্রিয় ফেসবুক গ্রুপ লোহাগাড়ার সেয়ানা পোলা-মাইয়া।

২৪ শে জুন সকাল থেকে লোহাগাড়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকার প্রবাসী পরিবারে কোনো ধরনের আনুষ্ঠানিকতা ছাড়ায় নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী উপহার হিসেবে পৌঁছে দেয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এই দুঃসময়ে সেয়ানা পোলা মাইয়া উপহার সামগ্রী পেয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছে প্রবাসী পরিবারগুলো। গ্রুপের প্রধান সমন্বয়ক মো: মিনহাজ ও পরিচালনা পর্ষদ সদস্য মিছবাহ উদ্দিন রাজিব, পারভেজ, আলমগীর, তারেক, নেজাম, রিদুয়ান, সাইফুল, সরোয়ার কামাল, রিয়াজ, লিমু, আইমন, আমিন, সাকিব, জসিম সহ অন্যান্য সদস্যরা মেসেজ ও ফোন পেলেই গোপনে উপহার সামগ্রী পৌছে দেয়ার কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

সেয়ানা পোলা মাইয়া গ্রুপের পরিচালনা পর্ষদ সদস্য সমাজকর্মী ও সংগঠক মিছবাহ উদ্দীন রাজীব বলেন, গ্রুপের এডমিন ও সদস্যের দেয়া চাঁদা ও বিভিন্ন জায়গা থেকে অনুদান সংগ্রহ করে সাময়িক কষ্টে পড়া প্রবাসী পরিবারগুলোর মাঝে খাদ্য সামগ্রী উপহার দেয়া হচ্ছে । করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত আমাদের সাধ্যমত সহযোগিতার এ প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। এর আগেও কয়েক শতাধিক অসহায় পরিবারে ও ঈমাম – মুয়াজ্জিন কে গ্রুপের পক্ষ থেকে উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়েছিল। এছাড়াও করোনা আক্রান্ত ও করোনা উপসর্গযুক্ত মুমূর্ষ রোগীদের জন্য বিনামূল্য অক্সিজেন ও নেবুলেজার সেবা প্রদানের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

Show More

MSKnews24.com desk

জনপদে জনগণের কণ্ঠস্বর

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close