চট্টগ্রামের খবর

চট্টগ্রামে সরকার নির্ধারিত দামও মিলেনি চামড়া বিক্রয় হয়েছে কম দামে

এমএসকে নিউজঃ চট্টগ্রামে এ বছরও অনেকটা পানির দামে বিক্রি হচ্ছে কোরবানি পশুর চামড়া। কোরবানিকৃত পশুর চামড়ার দর সরকার নির্ধারন করে দিলেও তার চেয়েও কম দামে চামড়া কিনছেন ব্যবসায়ীরা। গরুর চামড়া নির্ধারিত দরের কমে কেনার পাশাপাশি ছাগলের চামড়া বিক্রি হচ্ছে একেবারে পানির দরে।

শনিবার ঈদের দিন এলাকা ভেদে ৭০ হাজার থেকে লাখ টাকার ওপরে কেনা গরুর চামড়া বিক্রি হচ্ছে ৩০০ থেকে ৫০০ টাকায়। ৪০ হাজার থেকে ৬০ হাজার টাকার গরুর চামড়া বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ৩০০ টাকায়। পানির দামের চেয়েও কম দামে বিক্রি হচ্ছে ছাগলের চামড়া। ১০ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকার ছাগলের চামড়া বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১৫ টাকায়।

নগরের চকবাজার এলাকার বাসিন্দা আহমেদুর রহমান খোকন বলেন, এক লাখ টাকা দামের গরু কোরবানি দিয়ে তার চামড়া বিক্রি করেছি ৩০০ টাকায়।

আগ্রাবাদ মোগলটুলি এলাকার বাসিন্দা জসিম উদ্দিন বলেন, গরুর দামের উপর নির্ভর করছে চামড়ার দাম। ১ লাখ টাকা দামের গরুর চামড়া ৩০০ টাকার বেশি দিচ্ছে না মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা। তিনি ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা দামের গরুর চামড়া বিক্রি করেছি ৩২০ টাকায়।

অনেক ব্যবসায়ী বলছেন, গত বছরসহ অন্যান্য বছরে মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীদের তৎপরতা ছিল বেশী। তাই গত বছর আমরা চামড়া কিনতে পারিনী। তাই শেষ পর্যন্ত অনেক চামড়া নষ্ট হয়েছে। এবছর মৌসুমী ব্যবসায়ীদের কোন তৎপরতা নেই। কারণ তারা গত বছরের কথা মনে রেখেছে।

ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা জানান, এবার সবচেয়ে কম দামে চামড়া কেনাবেচা হচ্ছে। ট্যানারি-মালিকদের নির্ধারণ করে দেওয়া দামও মিলছে না চামড়ার। কম দরে চামড়া বিক্রি হওয়ায় দরিদ্র প্রতিবেশী, এতিমখানা, মাদ্রাসা প্রাপ্য অর্থ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এত কম দর হওয়ার কারণ হিসেবে আড়তদার ও ব্যবসায়ীদের দায়ী করছেন বিক্রেতারা। এদিকে কম দরে বেচাকেনা হওয়ায় চামড়া পাচারের আশঙ্কা করছেন অনেকেই।

ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এবার কোরবানির পশুর চামড়ার দাম ২০ থেকে ২৯ শতাংশ কমিয়ে ধরা হয়েছে। যেমন বলা হয়েছে, এবার ঢাকায় লবণযুক্ত গরুর চামড়া কেনাবেচা করতে হবে প্রতি বর্গফুট ৩৫ থেকে ৪০ টাকা দরে, যা গত বার ছিল প্রতি বর্গফুট ৪৫ থেকে ৫০ টাকা। সে হিসেবে দাম কমানো হয়েছে ২৯ শতাংশ। আর ঢাকার বাইরে ধরা হয়েছে প্রতি বর্গফুট ২৮ থেকে ৩২ টাকা, যা গত বছর ছিল ৩৫ থেকে ৪০ টাকা। এক্ষেত্রে গতবছরের চেয়ে দাম কমানো হয়েছে প্রায় ২০ শতাংশ।

এ ছাড়া সারাদেশে খাসির চামড়া গত বছরের প্রতি বর্গফুট ১৮ থেকে ২০ টাকা। এবছর ২৭ শতাংশ কমিয়ে ১৩ থেকে ১৫ টাকা করা হয়। আর বকরির চামড়া গত বছরের ১৩ থেকে ১৫ টাকা বর্গফুটের দর থেকে কমিয়ে এবার ১০ থেকে ১২ টাকা করা হয়েছে।

বৃহত্তর চট্টগ্রাম কাঁচা চামড়া আড়তদার সমবায় সমিতির সভাপতি আবদুল কাদের বলেন, সমিতির ১১২ জন সদস্য ছাড়াও আরও ১৫০ জন ব্যবসায়ী কোরবানির চামড়া কিনছেন। সরকারের নির্ধারণ করা দামেই এখন পর্যন্ত আমরা চামড়া কিনছি। তবে লবণ ছাড়া কাঁচা চামড়ার ক্ষেত্রে টাকা কম দেওয়া হচ্ছে।

Show More

MSKnews24.com desk

জনপদে জনগণের কণ্ঠস্বর

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close